কম খরচে আয়ারল্যান্ডের প্রথম ইনিংস গুটিয়ে নিল বাংলাদেশ, প্রাথমিক বিপর্যয়ে স্বাগতিকদেরও


আজ থেকে ঢাকায় শুরু হচ্ছে বাংলাদেশ ও আয়ারল্যান্ডের মধ্যে একমাত্র টেস্ট (BAN vs IRE)। প্রথম দিনে, আয়ারল্যান্ডের প্রথম ইনিংস 77.2 ওভারে 214 রানে গুটিয়ে যায়, জবাবে বাংলাদেশ 10 ওভারে 34/2 স্কোর করে। স্বাগতিকরা বর্তমানে আয়ারল্যান্ডের স্কোরের চেয়ে ১৮০ রান পিছিয়ে রয়েছে।

টসে জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেওয়ার পর আয়ারল্যান্ডের শুরুটা খারাপ হয়েছিল। ওপেনার মারে কামিন্স ৫ রান করে ১১ রান করে শরিফুল ইসলামের শিকার হন। কিছুক্ষণ পর দ্বিতীয় ওপেনার জেমস ম্যাককালামও ১৫ রান করেন। ব্যক্তিগত ১৬ রানে তাইজুল ইসলামের বলে রানআউট হন অধিনায়ক অ্যান্ড্রু বালবির্নি। লাঞ্চ পর্যন্ত 26 ওভারে দলের স্কোর 65/3।

লাঞ্চের পর, হ্যারি টেক্টর এবং কার্টিস ক্যাম্ফার ইনিংসের নিয়ন্ত্রণ নেন এবং চতুর্থ উইকেটে অর্ধশতক জুটি গড়ে স্কোরকে 100 ছাড়িয়ে যান। হাফ সেঞ্চুরি পূর্ণ করতে সক্ষম হন টেক্টর। তবে তিনি বেশিক্ষণ টিকতে পারেননি এবং ৫০ রান করে ১২২ রানে মেহেদি হাসান মিরাজের শিকার হন। ১ রান করে আউট হন পিটার মুর। ক্যাম্পারও ৩৪ রান করে তাইজুলের শিকার হন। চায়ের মাধ্যমে আয়ারল্যান্ড ৫৫ ওভারে ৬ উইকেটে ১৪৫ রান করে।

শেষ সেশনে, আয়ারল্যান্ড তাদের সপ্তম উইকেট হারায় 157 রানে এবং অ্যান্ড্রু ম্যাকব্রায়েন 19 রানের ব্যক্তিগত স্কোরে প্যাভিলিয়নে ফিরে যান। লোরকান টাকার ৩৭ এবং মার্ক অ্যাডায়ার ৩২ রানের অবদান রেখে দলের স্কোর ২০০ ছাড়িয়ে যায়। দলের শেষ উইকেটের পতন ঘটে গ্রাহাম হিউমের ফর্মে, যিনি 214 রান করে আউট হন। বাংলাদেশের পক্ষে তাইজুল ইসলাম প্রাণঘাতী বোলিং করে পাঁচ উইকেট নেন।

পাল্টা ইনিংস খেলতে নেমে বাংলাদেশের শুরুটাও ছিল বাজে এবং ওপেনার নাজমুল হোসেন শান্তও খাতা খুলতে পারেননি। তামিম ইকবাল ও মুমিনুল হক বাংলাদেশের ইনিংস সামলালেও দিনের শেষ বলে মার্ক অ্যাডাইরের ওভারে আউট হন তামিম। তিনি করেন ২১ রান। ১২ রানে অপরাজিত ছিলেন মুমিনুল।







Source link

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top